স্পষ্টভাষী শত্রু নির্বাক মিত্র অপেক্ষা ভালো ভাবসম্প্রসারণ(৩০০ শব্দের+)

প্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা আপনারা কি স্পষ্টভাষী শত্রু নির্বাক মিত্র অপেক্ষা ভালো ভাবসম্প্রসারণটি সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন। তাহলে সঠিক জায়গায় এসেছেন। আজকের পোস্টটিতে আমরা আপনাদের স্পষ্টভাষী শত্রু নির্বাক মিত্র অপেক্ষা ভালো সম্পর্কে তুলে ধরার চেষ্টা করব তাই শেষ পর্যন্ত আমাদের সাথেই থাকুন।
স্পষ্টভাষী শত্রু নির্বাক মিত্র অপেক্ষা ভালো
প্রিয় বন্ধুরা ভাব সম্প্রসারণটি সম্পর্কে জানতে আমাদের পোস্টটি শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়ে থাকুন আর আমরা উক্ত বিষয়টি সহজভাবে তুলে ধরার চেষ্টা করেছি যা পড়লে আপনারা পরীক্ষায় ভালো করে লিখতে পারবেন।

স্পষ্টভাষী শত্রু নির্বাক মিত্র অপেক্ষা ভালো 

ভাব-সম্প্রসারণঃ নির্বাক মিত্র সুবিধাভোগী চরিত্রের হয় বলে তার দ্বারা। বন্ধুরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। কেননা সে বন্ধুর ভুল-ত্রুটি না ধরে বন্ধুকে ভুল-ত্রুটির মধ্যে রাখে। অন্যদিকে স্পষ্টভাষী শত্রুর দ্বারা প্রতিপক্ষে উপকৃত হয়। কারণ, সে প্রতিপক্ষের দোষ ত্রুটি উন্মোচন করে প্রতিপক্ষকে শোধরানোর সুযোগ করে দেয়। জীবনচলার পথে একজন প্রকৃত ও সত্ত্বন্ধু প্রত্যেকেরই কাম্য; যে তার সুখে-দুঃখে, আনন্দ- বেদনায়, বিপদে-আপদে সুহৃদের ভূমিকা পালন করবে। 

কিন্তু অনেক সময় বন্ধুত্বের কারণে এবং বন্ধুত্ব নষ্ট হওয়ার আশঙ্কায় অনেকে বন্ধুর ত্রুটি-বিচ্যুতি নির্দেশ করে না। নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করে। ফলে মানুষ নিজেকে সংশোধন করার সুযোগ পায় না। প্রয়োজনের মুহূর্তে বন্ধু যদি উপযুক্ত পদক্ষেপ না নেয়, নির্বাক ভূমিকা পালন করে তবে সে বন্ধুর ভূমিকা বন্ধুসুলভ না হয়ে বরং বিপরীত হয়। মানুষের জীবনে স্পষ্টবাদিতা একটি মহৎ গুণ। স্পষ্টভাষী লোক শত্রু হলেও নির্বাক বন্ধু অপেক্ষা সহস্র গুণ শ্রেয়। 

কারণ, যেখানে বন্ধু বন্ধুর দোষের কথা উচ্চারণ করে না, বন্ধু হওয়ায় গোপন করে, সেখানে স্পষ্টভাষী শত্রু দোষ তুলে ধরে। তখন সে দোষ সংশোধনের বা সাবধানতা অবলম্বনের সুযোগ পায়। শত্রুর এই আচরণ মানুষের উপকারই করে। সে শত্রু হলেও পরোক্ষভাবে উপকার করে বন্ধুর মতোই দায়িত্ব পালন করে থাকে। এ প্রসঙ্গে সংস্কৃতে একটি প্রবাদ আছে, যার অর্থ- 'যিনি সামনে প্রিয়বাক্য বলেন, কিন্তু পরোক্ষে ক্ষতি করেন, তিনি বন্ধু হলেও উপরে দুধ আর ভিতরে বিষ রাখা দুধের-কলসির ন্যায়।

'এজন্য প্রজ্ঞাবান ব্যক্তিগণ নির্বাক মিত্রের চেয়ে স্পষ্টভাষী শত্রুর ভূমিকাকে অধিকতর গুরুত্ব দিয়েছেন। আমাদের সমাজে এমন অনেক লোক আছে, যারা বন্ধুর বিপদে বন্ধুর পাশে থেকে কোনোপ্রকার সাহায্য বা সহানুভূতি প্রকাশ না করে নির্বাক দর্শকরূপে তা উপভোগ করে। সেরূপ ব্যক্তি বন্ধু হলেও তাকে

পরিত্যাগ করা বাঞ্ছনীয়। স্পষ্টবাদী ব্যক্তি সবসময়ই অন্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্চার। তার সামনে ঘটে যাওয়া অন্যায়কে সে অন্যায় বলে প্রতিবাদ করতে কুণ্ঠাবোধ করে না। তাই এমন ব্যক্তি শত্রু হলেও সে নির্বাক বন্ধু অপেক্ষা অনেক ভালো।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

লিংক বাংলার নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url