Computer best screenshot software - কম্পিউটারের সেরা স্ক্রিনশট সফটওয়্যার

আপনারা অনেকেই আছেন যারা কম্পিউটার বা ল্যাপটপে স্ক্রিনশট নিতে পারেন না। আপনাদের জন্য আমরা খুঁজে বের করেছি কম্পিউটারের সেরা স্ক্রিনশট সফটওয়্যার। আজকের আর্টিকেলটিতে আপনারা Computer best screenshot software - কম্পিউটারের সেরা স্ক্রিনশট সফটওয়্যার সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন।
Computer best screenshot software - কম্পিউটারের সেরা স্ক্রিনশট সফটওয়্যার
কম্পিউটারে স্ক্রিনশট কিভাবে নিতে হয় সহ স্ক্রিনশট সম্পর্কিত সকল কিছু বিস্তারিত জানতে আমাদের আজকের আর্টিকেলটি সম্পন্ন পড়তে থাকুন।

ভূমিকা

বর্তমানে কম্পিউটারে বা ল্যাপটপে যেকোনো ধরনের ডকুমেন্ট বা ছবি সেভ বা কপি করে রাখতে স্ক্রিনশট ব্যবহার হয়ে থাকে। এছাড়া কোন ডকুমেন্ট বা এসাইনমেন্ট করা হয়েছে কিনা তা সহকর্মীকে নিশ্চিত করার জন্য স্ক্রিনশট ব্যবহার করতে পারেন। তবে অনেকেই স্ক্রিনশট নিতে পারে না। কিভাবে স্ক্রিনশট নিতে হয় সেটিও জানে না। আজকে আর্টিকেলটিতে আমরা কম্পিউটারের সেরা ৫ টি স্ক্রিনশট সফটওয়্যার এবং কম্পিউটারে স্ক্রিনশট কিভাবে নিতে হয় এ সম্পর্কে জানতে পারবো।

কম্পিউটারে স্ক্রিনশট কিভাবে নিতে হয়

কম্পিউটারে একটি স্ক্রিনশট নেওয়া আপনার অপারেটিং সিস্টেমের উপর নির্ভর করে বিভিন্ন পদ্ধতি ব্যবহার করে করা যেতে পারে। তবে কম্পিউটারে ইনবিল্ড পদ্ধতি রয়েছে, যা ব্যবহার করে স্ক্রিনশট নিতে পারবেন। পদ্ধতিটি দেওয়া হল।
  • আপনার কম্পিউটারের কিবোর্ডে প্রিন্ট স্কিন(PrtSc) বোতাম এবং Windows Key টি খুঁজে বের করুন।PrtSc সাধারণত কিবোর্ডের উপরের-ডান কোণে অবস্থিত।
  • উইন্ডোজ কী + PrtSc বোতামটিতে ক্লিক করুন। দেখতে পাবেন এটি আপনার কম্পিউটারের পুরো স্ক্রিনের একটি স্ক্রিনশট ক্যাপচার করবে।
  • পেইন্ট, ফটোশপ বা ওয়ার্ডের মতো ওয়ার্ড প্রসেসরের মতো ছবি এডিটর সফটওয়্যারটি খুলুন।Ctrl + V টিপে স্ক্রিনশট পেস্ট করুন। এভাবে নির্ধারিত স্থানে আপনার স্ক্রিনশটটি পেস্ট করে সংরক্ষণ করুন।
এভাবে আপনারা কম্পিউটারে ইনবিল্ড পদ্ধতি ব্যবহার করে স্ক্রিনশট নিতে পারবেন। তবে এতে তেমনভাবে আপনার ইচ্ছা মত স্ক্রিনশট নিতে পারবেন না। অর্থাৎ স্ক্রীনশট নেওয়ার সময় কাস্টমাইজ করতে পারবেন না।
আরো পড়ুনঃ কম্পিউটার ফাস্ট করার উপায়
এজন্যই আমরা আপনাদের জন্য আজকের আর্টিকেলটিতে কম্পিউটারের সেরা ৫ টি স্ক্রিনশট সফটওয়্যার সম্পর্কে তুলে ধরব। যা ব্যবহার করে আপনার ইচ্ছা মতো স্ক্রিনশট নিতে পারবেন। এখন পর্যন্ত আপনারা জানলেন কম্পিউটারে স্ক্রিনশট কিভাবে নিতে হয়।

Computer best screenshot software - কম্পিউটারের সেরা স্ক্রিনশট সফটওয়্যার

আপনার অনেকে আছেন যারা কম্পিউটারের বা ল্যাপটপে ইচ্ছামত স্ক্রিনশট নিতে পারেন না। স্ক্রিনশট নেওয়ার জন্য কিছু সফটওয়্যার রয়েছে যা ব্যবহার করে আপনারা যে কোন ভাবে আপনার ইচ্ছা অনুযায়ী স্ক্রিনশট নিতে পারবেন। বর্তমানে কাজের ক্ষেত্রে স্ক্রিনশটের বহুল ব্যবহৃত হয়। এই স্ক্রিনশট নেওয়ার জন্য আমরা আপনাদের জন্য কম্পিউটারের সেরা ৫ টি স্ক্রিনশট সফটওয়্যার খুঁজে বের করেছি। নিচে নামগুলো বলা হলো।
  • LightShot(লাইটশট)
  • ShareX(শেয়ারএক্স)
  • PicPick(পিকপিক)
  • Greenshot(গ্রীনশট)
  • Flameshot(ফ্লেমশট)
উক্ত স্ক্রিনশট সফটওয়্যার গুলো ব্যবহার করে আপনারা কম্পিউটারে স্ক্রিনশট নিতে পারবেন। চলুন দেরি না করে জেনে আসা যাক কম্পিউটারের সেরা ৫ টি স্ক্রিনশট সফটওয়্যার সম্পর্কে।

LightShot(লাইটশট)

বর্তমানে সবচেয়ে জনপ্রিয় অধিক ব্যবহৃত স্ক্রিনশট সফটওয়্যার হল LightShot(লাইটশট)। এটি ব্যবহার করে আপনার ইচ্ছা মতো স্ক্রিনশট নিতে পারবেন। এটি অনেক সহজ এবং ব্যবহারযোগ্য। এই সফটওয়্যারটি ইন্সটল করা খুব সহজ। আপনি গুগলে গিয়ে LightShot সার্চ দিবেন এবং দেখবেন আপনার সামনে অফিসিয়াল ওয়েবসাইট চলে আসবে সেখান থেকে আপনি এই সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করতে পারবেন। নিচে প্রদত্ত ছবিটি লাইট শট দিয়ে স্ক্রিনশট নেওয়ার সময় উক্ত টুলগুলো শো করবে। যা ব্যবহার করে কাস্টমাইজ করতে পারবেন।
এই সফটওয়্যারটি ব্যবহার করে আপনি যে কোন স্ক্রিনশট নিয়ে যেকোন জায়গায় সরাসরি paste করতে পারবেন। লাইট শটে স্ক্রিনশট নেওয়ার সময় আপনাকে কিছু কাস্টমাইজ করার টুলস দিবে যেটি ব্যবহার করে আপনি স্ক্রিনশট নেওয়ার সময় স্ক্রিনশটটি কাস্টমাইজ করতে পারবেন। এই ফিচারটি ম্যাক এবং উইন্ডোজের জন্য ফ্রি। এই সফটওয়্যারটির কিছু বৈশিষ্ট্য দেওয়া হল।
  • লাইট শট কম্পিউটারে কম জায়গা নেই এবং এটি নিম্নমানের কম্পিউটারের ব্যবহার করা যায়।
  • এটি ব্যবহার করা অনেক সহজ এবং এর ইউ আই অনেক ভালো।
  • এই সফটওয়্যার ব্যবহার করে যেকোনো জায়গায় স্ক্রিনশট পেস্ট করা যায়।
  • সমস্যা ছাড়াই উইন্ডোজে খুব ভালো কাজ করে।
  • জনপ্রিয় ব্রাউজারগুলিতে এক্সটেনশন হিসাবেও ব্যবহার করা যায়।
তাহলে আপনার জানতে পারলেন কম্পিউটারের সেরা ৫ টি স্ক্রিনশট সফটওয়্যার এর প্রথমটি সম্পর্কে।

ShareX(শেয়ারএক্স)

ShareX একটি জনপ্রিয় স্ক্রিনশট সফটওয়্যার যা ব্যক্তিগতভাবে স্ক্রিনশট আপলোড করার জন্য এটি অধিক ব্যবহার হয়। এটি ব্যবহার করা সহজ, বৈশিষ্ট্য-সমৃদ্ধ।একটি চিত্রের আকার পরিবর্তন করা, আমাদের অংশগুলিকে ঝাপসা করা, ক্যানভাস প্রসারিত করা এবং অন্য চিত্র যুক্ত করা, প্রভাব, আকার, ধাপ সংখ্যা ইত্যাদি যোগ করা এই টুলটিতে রয়েছে।
এই সফটওয়্যারটি মাধ্যমে আপনারা যে কোন কিছুর স্ক্রিনশট নিতে পারবেন এবং এটি ব্যবহার করা অনেক নিরাপদ। এই সফটওয়্যারটি বিভিন্ন ধরনের কাস্টমাইজ অপশন রয়েছে। এটি খারাপ দিক হলো এই সফটওয়্যারটি অনলি উইন্ডোজের জন্য ব্যবহারযোগ্য অর্থাৎ ম্যাকোস বা লিনাক্স এ সফটওয়্যারটি ব্যবহার করা যাবে না। তবুও এটি স্ক্রিনশট নেওয়ার জন্য ব্যবহৃত জনপ্রিয় টুল। কোনরকম সমস্যা ছাড়াই এই সফটওয়্যারটি আপনারা উইন্ডোজ এ ব্যবহার করতে পারবেন। এই সফটওয়্যারটির নাম লিখে সার্চ দিলে আপনার ডাউনলোড লিংক পেয়ে যাবেন।

PicPick(পিকপিক)

আমরা এখন কম্পিউটারের সেরা ৫ টি স্ক্রিনশট সফটওয়্যার গুলোর মধ্যে তৃতীয় নম্বরটি সম্পর্কে জানব।PicPick(পিকপিক) এটিও বহুল জনপ্রিয় স্কিনশট টুল।PicPick হল একটি চমৎকার স্নিপিং টুল  যা ShareX এর সাথে তুলনা করা যায়। এটি ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য বিনামূল্যে, খুব বিস্তৃত, এবং আপনি একটি স্ক্রিনশট টুল থেকে আশা করতে পারেন এমন সমস্ত বৈশিষ্ট্য পেয়ে যাবেন এই টুলটিতে। এটিতে একটি চমৎকার UI রয়েছে যা এটি আপনাদের জন্য ব্যবহার করা অবিশ্বাস্যভাবে সহজ করে তোলে যারা আগে কখনও ব্যাপক ফটো বা ভিডিও সম্পর্কিত কাজ করেননি।
টুলটি আপনাকে দ্রুত screenshot ক্যাপচার করতে, সম্পাদনা করতে, ভাগ করে নিতে, উন্নত করতে এবং কাস্টমাইজ করতে দেয়। যেমন অঙ্কন, পাঠ্য সন্নিবেশ, এবং আকার এবং সম্পাদনা বৈশিষ্ট্যগুলি যেমন ঝাপসা, উজ্জ্বল, তীক্ষ্ণ, এবং পুনরায় আকার দেওয়ার মতো বৈশিষ্ট্যগুলির সাথে আপনি সরাসরি গুগল ড্রাইভে এবং টুইটার এবং ফেসবুকের মতো প্রধান সামাজিক মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলিতে স্ক্রিনশট আপলোড করতে পারবেন। বলা যায়, এটি এই তালিকার সেরা স্ক্রিনশট সফটওয়্যার।

Greenshot(গ্রীনশট)

গ্রীনশট হল আরেকটি সহজ, ওপেন সোর্স এবং ফ্রি স্ক্রিনশট টুল। এটি একটি চমৎকার ইমেজ এডিটর  যা আপনাকে ছবি এডিট এবং রপ্তানি করতে সাহায্য করতে পারে। আপনি  টুল হটকিগুলি ব্যবহার করে বা লুকানো আইকনে গ্রীনশট আইকনে ক্লিক করে স্ক্রিনশট নিতে পারেন। এটি একটি জনপ্রিয় স্কিনশট সফটওয়্যার যা ব্যবহার করে আপনারা অনায়াসে ছবি ক্যাপচার বা স্ক্রিনশট নিতে পারবেন। এই সফটওয়্যারে আপনারা স্ক্রিনশট এডিট করার অপশনও পাবেন অর্থাৎ কাস্টমাইজ অধিক পরিমাণে করতে পারবেন। গ্রীন শট টুলটি অনেক পুরনো স্ক্রিনশট সফটওয়্যার যা এখন পর্যন্ত ভালোমতো কাজ করে।

Flameshot(ফ্লেমশট)

একটি স্নিপিং টুল এর  বিকল্প হিসেবে Flameshot ব্যবহার করতে পারেন। এটি Windows, Linux, এবং macOS-এর জন্য একটি বিনামূল্যের এবং ওপেন-সোর্স টুল যা সকল অপারেটিং সিস্টেমে নিখুঁতভাবে কাজ করে। এটি চমৎকার এবং ব্যবহার করা সহজ, যদিও এটি আমাদের প্রথম কয়েকটি screenshot software গুলির মত ব্যাপক নয়। উইন্ডোজে, অ্যাপটি সিস্টেম ট্রেতে থাকে এবং আপনি অ্যাপ আইকনে ক্লিক করার সাথে সাথেই স্ক্রিনশট নেওয়া শুরু করে দিবে।আপনাকে উইন্ডোজে একটি কীবোর্ড শর্টকাট তৈরি করতে হবে স্ক্রিনশট নেওয়ার জন্য।
এই স্ক্রিনশট  টুলটিতে কাস্টমাইজেশন অপশন রয়েছে। যা ব্যবহার করে যে কোন ছবি স্ক্রিনশট নেওয়ার সময় এডিট করতে পারবেন যা অনেকটা লাইট শট এর মত। বর্তমানে আমার কাছে সবচেয়ে সেরা স্ক্রিনশট টুলটি মনে হয়েছে তা হল লাইট শট যা সকলে অতি সহজে ব্যবহার করতে পারে।

মন্তব্যঃকম্পিউটারের সেরা ৫ টি স্ক্রিনশট সফটওয়্যার

আশা করি আপনারা কম্পিউটারের সেরা ৫ টি স্ক্রিনশট সফটওয়্যার সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। এখন আপনারা ঠিক করেন কোন সফটওয়্যারটি আপনার জন্য সেরা। তবে আমি বর্তমানে স্ক্রিনশট নেওয়ার জন্য লাইট শট সফটওয়্যারটি ব্যবহার করছি। আমার কাছে এটি অনেক ভালো মনে হয়েছে। আর্টিকেলটি ভালো লেগে থাকলে অবশ্যই শেয়ার করবেন। এ ধরনের প্রয়োজনীয় তথ্য জানতে আমাদের ওয়েবসাইটটি নিয়মিত ভিজিট করুন।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

লিংক বাংলার নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url